সাতকানিয়ায় হেড মাষ্টারের বিরুদ্ধে নির্যাতিত এক কিশোর পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ৪:৫৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতকানিয়ায় এক কিশোরকে স্কুল মাঠে খেলার অপরাধে প্রধান শিক্ষক ও ইউপি সদস্যের হাতে নির্মম আঘাতে জর্জরিত হতে হলো এমন অভিযোগ এনে উপজেলার ছদাহার আবুল হোসেন মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম সিহাবুদদীন ইউসুপ ও সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ করিমসহ মোট ৪জনের বিরুদ্ধে আজ ১৬ই সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) সকাল ১১টায় সাতকানিয়ায় একটি রেষ্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলার ছদাহার ২নং ওয়ার্ডের আব্দুস ছফুরের স্ত্রী জেসমিন আক্তার। সংবাদ সম্মেলনে জেসমিন আক্তার ও আহতের বড় ভাই খোকন বলেন, গেলো ১০ই সেপ্টেম্বর বিকাল ৪টায় কিশোর ইমরানসহ একটি কিশোর দল স্থানীয় আবুল হোসেন মিয়া সরকারি মাঠে ফুটবল খেলতে গেলে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল করিম ও স্কুল প্রধান শিক্ষক এস এম সিহাবুদদীন ইউসুপ ধাওয়া করেন। ধাওয়া করার এক পর্যায়ে কিশোর ইমরান হোসেনকে প্রধান শিক্ষক ইউসুপ এবং সাবেক ইউপি সদস্য করিম ধরে ফেলেন,ধরার পরে ইমরান হোসেনকে স্কুল অফিস কক্ষে কোন কারণ ছাড়া ইমরান হোসেনকে সুক্ষ ভাবে শরীরের ভেতর ব্যাপক আঘাত করেন।

আহত ইমরান হোসেনের মা জেসমিন আক্তার আরো বলেন, আমার ছেলেকে এমন নির্মম ভাবে আঘাত করার পরে আমরা খবর পেয়ে উদ্ধার করে সাতকানিয়া হাসপাতালে ভর্তি করায় পরে অবস্থার অবনতি এবং অনবরত ছেলে বমি করলে তাকে স্থানীয় প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করায় এখনো ভর্তি অবস্থায় আছেন। আহত ইমরানের বড় ভাই খোকন সংবাদ সম্মেলনে আরো অভিযোগ করে বলেন,আমার ছোট ভাই ইমরানের শারীরিক অবস্থা বেগতিক দেখে হেড মাষ্টার ইউসুপ এবং আব্দুল করিম উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে সাতকানিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তবে আমরাও আমার ভাই এর চিকিৎসাপত্র দিয়ে সাক্ষ্য প্রমাণ নিয়ে একটি অভিযোগ দিয়েছি সাতকানিয়া থানায়। আমরা আমার ভাই এর বর্তমান শারীরিক অবস্থা নিয়ে খুবই শংকিত। আমরা হেড মাষ্টার ইউসুপসহ অপরাপর জড়িত ব্যক্তির শাস্তি চাই।