গন ধর্ষনের ৩ঘন্টা পরই ওসি জাকেরের জালে ধর্ষকঃগ্রেফতার-২

 

 

সৈয়দ আককাস উদদীন 

লোহাগাড়ায় প্রতিবন্ধী মেয়েকে গণ ধর্ষণের অভিযোগে ২ যুবক আটক

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় এক প্রতিবন্ধী মেয়েকে গণধর্ষণের অভিযোগে ২ যুবককে আটক করেছে থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় ২৫ মে সন্ধ্যা ৭টার দিকে লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম উপজেলার কলাউজান রাবার ড্যাম এলাকা থেকে ধর্ষক ২যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে ।

আটককৃতরা হল উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের উত্তর কলাউজান রাবার ড্যাম হিন্দু পাড়া এলাকার মৃত বিমল দাশের পুত্র টিস্যু দাশ প্রকাশ বিপ্লব দাশ টিস্যু (৪৫) এবং একই এলাকার মৃত স্বপন দাশের পুত্র বিসু দাশ(৩০)।

জানা যায়, উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের উত্তর কলাউজান হিন্দু পাড়া এলাকায় বাক প্রতিবন্ধী মেয়ে তার পরিবারের সাথে ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসেন।ভিকটিমকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থাকান কারণে ভিকটিমকে বাড়ীতে রেখে তার পরিবারের সদস্যরা চট্টগ্রাম শহরে চলে যান পরিবারের সবাই চট্টগ্রাম শহরে থাকতেন। গত ২৪ মে রাত ১০টার দিকে ভিকটিমের বাড়ীতে ধর্মীয় অনুষ্ঠান গীতা পাঠের অাসর চলছিল। ধর্মীয় অনুষ্ঠান শেষ করে বাক প্রতিবন্ধী উক্ত প্রতিবন্ধী মহিলা বাড়ীতে ফেরার সময় বাড়ীর পার্শ্বে কুইরগ্যা খরের মারার নির্জন জায়গায় একা পেয়ে টেনে নিয়ে জোরপূর্বক টিস্যু দাশ ও বিসু দাশ মিলে তাকে গণধর্ষণ চালায় ।

ভিকটিমের বাবা জানান,আমি পরিবারকে নিয়ে শহরে থাকি।ঈদের ছুটির শেষে আমি শহরে চলে যায়। আমার বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থাকায় আমার বাড়ীতে বোনের সাথে ছিল। আমার মেয়ে গীতা পাঠের অনুষ্ঠান শেষ করে রাতে বাড়ীতে চলে আসার সময় এলাকার টিস্যু দাশ ও বিসু দাশ মিলে আমার মেয়েকে গণধর্ষণ চালায়। বিষয়টি বাড়ীর আত্নীয় স্বজনেরা আমাকে খবর দিলে আমি লোহাগাড়া থানাকে অবহিত করি।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান,বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে গণধর্ষণের বিষয়ে ভিকটিমের বাবা ২৫ মে বিকেলে থানায় অভিযোগ করলে থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুুহাম্মদ রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে কলাউজান রাবার ড্যাম এলাকা হতে মাত্র ২ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক টিস্যু দাশ ও বিসু দাশকে আটক করে। এ বিষয়ে থানায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন বলেও তিনি জানান।

মেয়েকে গণধর্ষণের অভিযোগে ২ যুবককে আটক করেছে থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় ২৫ মে সন্ধ্যা ৭টার দিকে লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম উপজেলার কলাউজান রাবার ড্যাম এলাকা থেকে ধর্ষক ২যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে ।

আটককৃতরা হল উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের উত্তর কলাউজান রাবার ড্যাম হিন্দু পাড়া এলাকার মৃত বিমল দাশের পুত্র টিস্যু দাশ প্রকাশ বিপ্লব দাশ টিস্যু (৪৫) এবং একই এলাকার মৃত স্বপন দাশের পুত্র বিসু দাশ(৩০)।

জানা যায়, উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নের উত্তর কলাউজান হিন্দু পাড়া এলাকায় বাক প্রতিবন্ধী মেয়ে তার পরিবারের সাথে ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসেন।ভিকটিমকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থাকান কারণে ভিকটিমকে বাড়ীতে রেখে তার পরিবারের সদস্যরা চট্টগ্রাম শহরে চলে যান পরিবারের সবাই চট্টগ্রাম শহরে থাকতেন। গত ২৪ মে রাত ১০টার দিকে ভিকটিমের বাড়ীতে ধর্মীয় অনুষ্ঠান গীতা পাঠের অাসর চলছিল। ধর্মীয় অনুষ্ঠান শেষ করে বাক প্রতিবন্ধী উক্ত প্রতিবন্ধী মহিলা বাড়ীতে ফেরার সময় বাড়ীর পার্শ্বে কুইরগ্যা খরের মারার নির্জন জায়গায় একা পেয়ে টেনে নিয়ে জোরপূর্বক টিস্যু দাশ ও বিসু দাশ মিলে তাকে গণধর্ষণ চালায় ।

ভিকটিমের বাবা জানান,আমি পরিবারকে নিয়ে শহরে থাকি।ঈদের ছুটির শেষে আমি শহরে চলে যায়। আমার বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান থাকায় আমার বাড়ীতে বোনের সাথে ছিল। আমার মেয়ে গীতা পাঠের অনুষ্ঠান শেষ করে রাতে বাড়ীতে চলে আসার সময় এলাকার টিস্যু দাশ ও বিসু দাশ মিলে আমার মেয়েকে গণধর্ষণ চালায়। বিষয়টি বাড়ীর আত্নীয় স্বজনেরা আমাকে খবর দিলে আমি লোহাগাড়া থানাকে অবহিত করি।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান,বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে গণধর্ষণের বিষয়ে ভিকটিমের বাবা ২৫ মে বিকেলে থানায় অভিযোগ করলে থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুুহাম্মদ রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে কলাউজান রাবার ড্যাম এলাকা হতে মাত্র ২ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক টিস্যু দাশ ও বিসু দাশকে আটক করে। এ বিষয়ে থানায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন বলেও তিনি জানান।

 

 

এই বিষয়ে সাতকানিয়া সার্কেলের এ্যাডিশনাল এসপি জাকারিয়া রহমান জিকু বলেন, অপরাধী করেই কেউ আর পার পাবেনা সাতকানিয়া লোহাগাড়ার জনপদে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.