বাবুনগরীর প্রেস সচিব ফারুকী আরও ৯ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশ বিলুপ্ত কমিটির আমির ও বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর খাদেম ও প্রেস সচিব ইনআমুল হাসান ফারুকীকে আরও ৯ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার বিকালে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফরিদা ইয়াসমিন শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

চট্টগ্রাম জেলা কোর্ট পরিদর্শক হুমায়ুন কবির জানান, হাটহাজারীতে হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবের ঘটনায় ইনামুল হাসান ফারুকীর বিরুদ্ধে দায়ের করা দুটি মামলায় ১০ দিন করে আদালতে ২০ দিন রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত শুনানি শেষে এক মামলায় ৫ দিন ও আরেকটিতে ৪ দিন করে মোট ৯ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ২১ মে রাতে হাটহাজারীর ফতেয়াবাদ থেকে ফারুকীকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় তিনি তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী থেকে হাটহাজারী মাদ্রাসার উদ্দেশ্যে আসছিলেন। গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দুপুরে র‌্যাব তাকে হাটহাজারী মডেল থানায় হস্তান্তর করে।

গ্রেফতারকৃত ইনআমুল উক্ত জেলার চাটখীল থানার খিলপাড়া পূর্ব সানোখালী এলাকার মাওলানা ওমর ফারুকের পুত্র। তিনি বাবুনগরীর পক্ষ হয়ে হেফাজতের যাবতীয় বিবৃতি ও প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠাতেন। এ ছাড়া তিনি হাটহাজারী উপজেলা হেফাজতের প্রচার সম্পাদক ছিলেন।

গ্রেফতার ইনআমুলের বিরুদ্ধে হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক আমির আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলা ও গত ২৬ মার্চ হাটহাজারী থানা ভবন, ভূমি অফিস ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনাসহ দুইটি মামলার আসামি। ওই দুই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয় বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

প্রসঙ্গত, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ঘিরে ঢাকার বায়তুল মোকারমের মুসল্লিদের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে গত ২৬ মার্চ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশের গুলিতে হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন। পরে মাদ্রাসার বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা হাটহাজারী থানা ভবন, ভূমি অফিস ও ডাকবাংলাতে ভাঙচুর অগ্নিসংযোগ করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.