চন্দনাইশে নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ বিক্রির দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা, ১শ কেজি মাছ জব্দ

প্রকাশিত: ৮:২৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২১

 নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

মৎস্য বিভাগ ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম হিসেবে ঘোষণা করেছে। এ সময় ইলিশ আহরন, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয় ও বিক্রয় নিষিদ্ধ করা হয়েছে। নিষিদ্ধ থাকা সত্বেও চন্দনাইশ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলার দেওয়ানহাট মৎস বাজার, দোহাজারী পৌরসভা ও চন্দনাইশ পৌরসভার কাঁচাবাজারে উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে সোমবার (৪ অক্টোবর) উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে চন্দনাইশ পৌরসভা কাঁচাবাজারে মাছ বিক্রেতা সজল দাসের ৫০ কেজি ইলিশ ও ৩০ কেজি জেলিযুক্ত গলদা চিংড়ি জব্দ করা হয়। অপরদিকে দোহাজারী মাছ বাজারের মৎস্য ব্যবসায়ী মো. মফিজুল ইসলামের ২০ কেজি জেলিযুক্ত বাগদা চিংড়ি জব্দ করা হয়। নিষিদ্ধ সময়ে ইলিশ বিক্রি ও জেলিযুক্ত চিংড়ি বিক্রির দায়ে ভোক্তা অধিকার আইন ও মৎস্য পরিদর্শন ও মান নিয়ন্ত্রন আইন ও মৎস্য সুরক্ষা ও সরক্ষণ আইনে ২ মৎস্য ব্যবসায়িকে পাঁচ হাজার টাকা করে মোট দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযান পরিচালার সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ কামাল উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা মৎস্য দপ্তরের ফিল্ড অফিসার সোলতান আহমদ ও ক্যচিংনু মারমা প্রমুখ।