যুক্তরাষ্ট্রের চার অঙ্গরাজ্যে টিকা নিলেই মিলছে পুরস্কার!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : মার্কিনীদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহী করতে যুক্তরাষ্ট্রের চার অঙ্গরাজ্যে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।
ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়ে অনেক মার্কিনীদের মধ্যেই রয়েছে প্রবল অনীহা।

এই পরিস্থিতি সামাল দিতে নিউইয়র্ক, মেরিল্যান্ড, ওরেগান এবং ওহাইও অঙ্গরাজ্যে এই পুরস্কার দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। নিউইয়র্কে এই পুরস্কারের সর্বোচ্চ মূল্য ধার্য করা হয়েছে ৫ মিলিয়ন ডলার। ওহাইওতে দেওয়া হবে ১ মিলিয়ন ডলার। বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যও নানা পদক্ষেপ ঘোষণা করেছে। এসব পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে নগদ অর্থ পুরস্কার।

নিউইয়র্কে স্টেটে পুরস্কারের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে ১৩টি পুরস্কার। সর্বোচ্চ পুরস্কারের মূল্য ৫ মিলিয়ন ডলার। এরপর দ্বিতীয় পুরস্কার ৫০ হাজার ডলার, তৃতীয় পুরস্কার ২০ হাজার ডলার, চতুর্থ পুরস্কার ৫ হাজার ডলার এবং পঞ্চম পুরস্কার ২ হাজার ডলার, ষষ্ঠ ৫০০ ডলার, সপ্তম ৪০০ ডলার, অষ্টম ২০০ ডলার, নবম ১০০ ডলার, দশম ৫০ ডলার, একাদশ ৪০ ডলার, দ্বাদশ ৩০ ডলার, এবং ত্রয়োদশ ২০ ডলার।

২৪ থেকে ২৮ মে’র মধ্যে নির্ধারিত ১০টি টিকাদান কেন্দ্রে গিয়ে যারা ভ্যাকসিন নেবেন তারা পাবেন এই লটারির টিকিট। তবে তাদের বয়স ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে হতে হবে। পুরো নিউইয়র্ক স্টেটের জন্য এই লটারির সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। নিউইয়র্ক স্টেট লটারির অধীনে এই কর্মসূচি পরিচালিত হবে। যে দশটি টিকাদান কেন্দ্রে ভ্যাকসিন নিলে এই লটারি দেওয়া হবে সেগুলি হচ্ছে- নিউইয়র্ক সিটির মেডগার এভার্স কলেজ, ২৩১ ক্রাউন স্ট্রিট, ব্রুকলিন। বে ইডেন সিনিয়ার সেন্টার, ১২২০ ইস্ট, ২২৯ স্ট্রিট, ব্রংকস। জেভিটস সেন্টার, ৪২৯, ১১ এভিনিউ। ইয়র্ক কলেজ, ১৬০-২ লিবার্টি ইভনিউ, জ্যামাইকা এবং লং আইল্যান্ডের স্টোনিব্রুক কলেজ।

এছাড়া সিটির বাইরে সিরাকুজ, ইয়ংকার্স, বাফেলো, কুইন্সবেরি, এবং রচেস্টার টিকাদান কেন্দ্রেও লটারির টিকিট পাওয়া যাবে। এই একই পদক্ষেপ নিয়েছে ওহাইও অঙ্গরাজ্য। তারাও টিকা গ্রহণকারীদের জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে। এই পুরস্কারের সর্বোচ্চ পরিমাণ ১ মিলিয়ন ডলার। ওহাইও অঙ্গরাজ্যের গভর্নর মাইক ডিওয়াইন গত ১২ মে এক টুইটবার্তায় লিখেছেন, তার রাজ্য প্রতি সপ্তাহে একজন টিকা গ্রহণকারীকে মিলিয়ন ডলার করে পুরস্কার দেবে। আগামী পাঁচ সপ্তাহ পর্যন্ত লটারির মাধ্যমে দেওয়া হবে এই পুরস্কার।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.