সাংবাদিকদের হাসপাতালের কোনো তথ্য দেওয়া যাবে না: সিভিল সার্জন

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

যে দিনটিতে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হল ২১২ জনের, কাকতালীয়ভাবে সেদিনই সাংবাদিকদের কোনো ধরনের তথ্য না দিতে ঢাকার সব সরকারি সরকারি হাসপাতালকে মানা করে দিলেন ঢাকার সিভিল সার্জন।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে ঢাকা জেলার সব থানা-উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ছাড়াও বিভিন্ন হেলথ ক্লিনিক ও মাতৃসদন কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসারদের পাঠানো চিঠিতে ওই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ঢাকার সিভিল সার্জন ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান স্বাক্ষরিত ওই চিঠির বিষয় হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে ‘ঢাকা জেলাধীন সরকারী হাসপাতালসমূহে রোগীর সেবা সম্পর্কীয় ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মকাণ্ডের উপর কোন প্রকার তথ্য আদানপ্রদান ও মন্তব্য প্রিন্ট মিডিয়াকে না দেয়া প্রসঙ্গে।’

চিঠিতে লেখা হয়েছে, ‘উপর্যুক্ত বিষয় এবং সূত্রের প্রেক্ষিতে ঢাকা জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের সংশ্লিষ্ট সকলে অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, বিরাজমান কোভিড-১৯ মহামারিকালীন পরিস্থিতিতে সিভিল সার্জন ব্যতীত অন্য কাউকে টিভি চ্যানেল কিংবা কোন প্রকার প্রিন্ট মিডিয়ার নিকট স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ক কর্মকান্ড অথবা রোগ ও রোগীদের সম্পর্কে কোন ধরনের তথ্য আদান-প্রদান বা মন্তব্য না দেয়ার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।’

চিঠিতে আরও লেখা হয়েছে, ‘একই সাথে প্রিন্ট মিডিয়ার ব্যক্তিবর্গকে রোগীর ছবি তোলা, ভিডিও করা অথবা সাক্ষাৎকার ধারণ করা থেকে বিরত থাকার নিমিত্তে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা যাচ্ছে। এহেন কর্মকান্ড রোগীর ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ভঙ্গের সামিল। এতদসংক্রান্ত কোন তথ্য উপাত্ত নেয়ার প্রয়োজন হলে সরাসরি সিভিল সার্জন, ঢাকার সহিত যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হলো।’

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.