আজকের হরতাল প্রমান করে হেফাজত ইসলাম ধ্বংসের শেষ প্রান্তে!

নিজস্ব প্রতিবেদক

সমগ্র বাংলাদেশের কোথাও হরতালের চিত্র দৃশ্যমান না,ধর্মীয় রাজনীতির মোড়কে উন্নয়নে বিশ্বাসী সরকারকে হটানের মিশনে নেমেছে হেফাজতের লেবাস পরে মাওলানা মামুনুল হক গনমাধ্যমে পাঠানো একটি বিবৃতিতে এমনটাই উল্লেখ করেছেন তরুন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও সাংবাদিক সৈয়দ আককাস উদদীন

শুধু তাই নয় তিনি আরো বলেন,হরতাল ডেকে হরতালে লোকজন সমাগম করতে না পেরে অচিরেই নিজেদের ভেতর ফাটল জনসমাগমে পরিলক্ষিত হয়েছে বলেও মত প্রকাশ করেছেন।

এবং মোদী বিরোধী হরতালে অন্যরকম পরিচিতি লাভ করার অপচেষ্টায় মরিয়া মাওলানা মামুনুল হক।

ইসলাম বাংলাদেশের দেশব্যাপী ডাকা হরতালে বন্দরনগর চট্টগ্রামে রোববার (২৮ মার্চ) সকাল থেকে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় আজ যানবাহনের সংখ্যা কিছুটা কম। রাস্তায় দেখা মিলেনি  হরতাল আহ্বানকারীদের।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশ-র‌্যাবের পাশাপাশি মাঠে রয়েছেন বিজিবি সদস্যরা। যেকোনো নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড প্রতিহত করতে পুলিশ সদস্যদের সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় থাকতে বলা হয়েছে।

সকালে নগরের বিভিন্ন এলাকায় যানবাহন চলাচল করলেও সংখ্যায় ছিল কম। দূরপাল্লার যাত্রীদের বাস কাউন্টারে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এছাড়া হাটহাজারী এলাকায় কওমী মাদরাসার ছাত্ররা রেললাইনের স্লিপার তুলে ফেলায় নাজিরহাট-দোহাজারী লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে যান চলাচল। অফিস পাড়ায় কাজকর্ম স্বাভাবিক। তবে এখনও অবরুদ্ধ খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম সড়ক।

তবে এদিন চট্টগ্রাম থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। ট্রেন ও বিমান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বেলা ১২টা) কোথাও কোনো অপ্রীতিকার ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। হরতালের সমর্থনে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদেরও রাস্তায় নামতে দেখা যায়নি।

অন্যদিকে, এই হরতালকে লজ্জার হিসেবেও দেখছেন হেফাজতে ইসলাম নেতাদের কেউ কেউ। তারা বলছে, পরিকল্পনা অনুযায়ী কোন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হচ্ছে না বলে হরতালে সড়কে যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে হেফাজতের এক নেতা চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, দুর্বল নেতৃত্বেই আজকের হরতাল ব্যর্থতার নমুনা হিসেবে দেখা উচিত। এখান থেকেই শিক্ষা না নিলে ভবিষ্যতে হেফাজতে ইসলাম অস্তিত্বও হারাতে পারে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.