ঈদের বেড়ানো মাটি হলো তাদের!

লোহাগাড়ায় খালার বাড়িতে বেড়াতে এসে হামলার শিকার খালাসহ তিন ভাগ্নি

প্রকাশিত: ৯:২০ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২১

লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার চুনতি ইউনিয়নের সাতগড় বড়ঘোনা এলাকায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে খালার বাড়িতে বেড়াতে এসে হামলার শিকার হলেন খালা শাহিন আক্তার সহ তিন ভাগ্নি। এ হামলার ঘটনায় গত ২৪ মে রাতে খালা শাহিন আক্তার লোহাগাড়া থানায় হামলাকারী খোরশেদ, আমির হোসেন, মোরশেদ, বেবী আক্তারসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেও এটি জিডি হিসেবে রেকর্ড করেছেন লোহাগাড়া থানা পুলিশ (জিডি নং-৯৮৬, তারিখ : ২৪.০৫.২০২১)।

শাহিন আক্তার জানান, প্রতিপক্ষ হামলাকারীরা দীর্ঘদিন ধরে সমাজের নানা অপরাধ কর্মকান্ড ও এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায়
২৩ মে সন্ধ্যা ৫ টার দিকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আমার বাড়িতে বেড়াতে আসা আমার ভাগ্নি নাছিমা আক্তার বাড়ির উঠানের সামনে আম গাছে পাকা আম পাড়তে গেলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করত: ঝাপটাইয়া ধরিয়া মাথা লক্ষ্য করে স্বজোরে বারি মারিয়া রক্তাক্ত জখম করে।
এ সময় তার আত্নচিৎকারে আমি, ভাগ্নি শাবনুর ও ইসরাত জাহান পাখি এগিয়ে আসলে প্রতিপক্ষ আমির হোসেন, মোরশেদ ও বেবী আক্তার কাঠের লাঠি দিয়ে আমাদেরকে এলোপাথাড়ি বারি মারিয়া থেতলা ও রক্তাক্ত ফুলা জখম করে। এসময় আমাদের আত্নচিৎকারে আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে এ বিষয়ে বেশী বাড়াবাড়ি করিলে প্রাণে হত্যা করিবে মর্মে প্রকাশ্যে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসামীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে, স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে গুরতর আহতাবস্থায় আমাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

এ প্রসঙ্গে লোহাগাড়া থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ বলেন, ঘটনার বিষয়ে থানায় জিডি রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।