ইউপি নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মেম্বার পদপ্রার্থী খোরশেদ আলম ভুট্টো।

প্রকাশিত: ৩:৪৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২১

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

২৩ ডিসেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এদিকে সময় ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনী দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন। বিশেষ করে নতুনদের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে সাড়া ফেলেছে ব্যাপক ভাবে তারমধ্যে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে খোরশেদ আলম ভুট্টোকে নিয়ে চলছে
চায়ের দোকান, পাড়া মহল্লা, মাঠঘাট, হাটবাজার সর্বত্র সাধারণ মানুষের মাঝে চলছে আলোচনা।

লোহাগাড়া উপজেলার আসন্ন ৫নং কলাউজান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৫নং ওয়ার্ডের, পশ্চিম কলাউজান বাংলাবাজারের পূর্ব পাশে শিকদার পাড়ার মরহুম ফারুক আহমদ সওদাগর এর সুযোগ্য সন্তান মো খোরশেদ আলম ভুট্টু, মেম্বার পদে সকলের দোয়া ও সহযোগীতা ভালবাসা চেয়েছেন।

খোরশেদ আলম ভুট্টুকে,, ৫নং কলাউজান ইউনিয়নের,, ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসেবে দেখতে চায় ৫নং ওয়ার্ডের ভোটাররা। স্থানীয় মানুষের সাথে আলাপের মাধ্যমে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। তিনি নির্বাচিত হলে জনগণ তাকে সব সময় কাছে পাবে এমন প্রত্যাশা তাদের।

তিনি বেশ কয়েকটি সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেনঃ
পরিচালকঃ শাহ মজিদিয়া শিশু একাডেমী কে,জি স্কুল।
সেক্রেটারিঃ ওমর আলী সিকদার পাড়া জামে মসজিদ।
সদস্যঃ শাহ মজিদিয়া হেফজখানা ও এতিমখানা।

এবিষয় জানতে চাইলে খোরশেদ আলম ভুট্টো বলেন, ইনশাআল্লাহ, এলাকাবাসী আমাকে যদি নির্বাচিত করে আমি মেম্বার হলে আমার ওয়ার্ডের সামাজিক উন্নয়ন সহ অবহেলিত মানুষের পাশে সব সময় থাকব এবং ৫ নং ওয়ার্ডের সকল রাস্তাঘাট নির্মাণ, যোগাযোগ ব্যবস্থার আরও উন্নয়ন ঘটাবো। মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল করব। দেশসেরা মডেল ওয়ার্ড উপহার দেওয়ার চেষ্টা করব। সরকারি যেকোন সেবা বিনামূল্যে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করব। মূলত আমি জনপ্রতিনিধি নয়, বরং জনবান্ধব প্রতিনিধি হওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে। ওয়ার্ডের যেকোন সমস্যা সমাধানে সাবেক জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে জনগণের ন্যায্য অধিকারকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করব। বিচার শালিসে দালালি প্রবণতা দূরীকরণে সার্বক্ষণিক চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ।
তিনি আরো বলেন, কলাউজান ৫ নং ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও মডেল ওয়ার্ড নির্মাণে নিরলস প্রচেষ্টা হবে আমার মূল টার্গেট।

সাধারণ মানুষের মধ্যে তার যে জনপ্রিয়তা রয়েছে সে মেম্বার বিজয়ী হওয়া প্রায় সুনিশ্চিত।নির্বাচনী মতবিনিময় সভা থেকে নিয়ে সাধারণ উঠান বৈঠকেও সাধারণ মানুষের ঢল নেমে আসছে প্রতিনিয়ত।
তার নির্বাচনী সাধারণ মতবিনিময় সভায় হাজারও ভোটারদের ঢলে জনসভা পরিপূর্ণ হয়ে যায়।
শত শত মহিলা ভোটারদের স্বত:স্পূর্ত অংশগ্রহণে প্রতিটি উঠান বৈঠক সমাবেশে পরিণত হচ্ছে। গত কয়েকটি উঠান বৈঠকে শতাধিক মহিলার উপস্থিতি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের ভাবিয়ে তুলছে।
স্থানীয় লোকজন খোরশেদ আলম ভুট্টোকে ছাড়া আর কাউকে ভোট দেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। ওয়ার্ডের প্রতিটি প্রান্তে খোরশেদ আলম ভুট্টো ছাড়া অন্য কারো নাম শুনাও যাচ্ছে না।
প্রত্যেকটি এলাকায় ও গ্রামে প্রায় মুরব্বি, যুবসমাজ ও মহিলাদের মুখে খোরশেদ আলম ভুট্টো এর বিকল্প নেই। নতুন ভোটারদের একটাই দাবী, সুস্থ নির্বাচন হলে ৮০% ভোট পেয়ে খোরশেদ আলম ভুট্টো নির্বাচিত হতে পারেন ইনশাআল্লাহ ।